More

    কক্সবাজারের আকাশে রোমাঞ্চকর প্যারাসেইলিং

    প্রভাতি সংবাদ ডেস্ক:

    আকাশে উড়ে পাহাড়, সমুদ্র দেখার সাধ কার না মনে জাগে! আজন্ম লালিত এই সাধ পূরণ করা সম্ভব প্যারাসেইলিংয়ের মাধ্যমে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পর্যটকদের কাছে প্যারাসেইলিংয়ের কদর অনেক। বাংলাদেশে প্যারাসেইলিং করে রোমাঞ্চর অভিজ্ঞতা নেয়ার সুযোগ রয়েছে। পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে প্যারাসেইলিং করা যায়। বেশ কয়েক বছর ধরে কক্সবাজার ভ্রমণ আসা পর্যকটরা প্যারাসেইলিংয়ের আনন্দ নিচ্ছেন।

    কক্সবাজার শহর থেকে প্রায় ৬ কিলোমিটার দূরে সৈকতের হিমছড়ি দরিয়ানগর পয়েন্টে মেরিন ড্রাইভের দক্ষিণ পাশের সৈকতে প্যারাসেইলিং করা হয়। দুইটি প্রতিষ্ঠান সেখানে পর্যটকদের জন্য প্যারাসেইলিংয়ের আনন্দ উপভোগের সুযোগ দিচ্ছেন। সেখানে গেলেই চোখে পড়বে প্যারাসুটে চড়ে মানুষ আকাশে উড়ছে। নিচে উত্তাল সমুদ্র।

    প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত প্যারাসেইলিংয়ের সৌন্দর্য উপভোগ করতে দরিয়ানগরে ভিড় করেন পর্যটকরা। এ আনন্দ পেতে ব্যয় করতে হবে দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা।

    একটি প্যারাসুটে বেঁধে দেওয়া হবে আপনাকে, একটি স্পিড-বোট আপনাকে টেনে নিয়ে যাবে সমুদ্রে, আর সেই তীব্র গতিতে আপনি ঠিক একটা ঘুড়ির মতই উড়তে থাকবেন।

    পাখির মতো সমুদ্রের উপর দিয়ে উড়ে বেড়ানোর একমাত্র উপায় প্যারাসেইলিং। রোমাঞ্চকর এ প্যারাসেইলিং এর স্বাদ নেওয়ার সবচেয়ে সুন্দর স্থান হলো সৈকত। বর্তমানে দরিয়ানগরে দুইটি প্রতিষ্ঠান থেকে প্যারাসেইলিং করার ব্যবস্থা আছে।

    প্যারাসেইলিং করার কয়েকটি প্যাকেজ আছে। খরচ পড়বে ২০০০ থেকে ২৫০০ টাকা। ২০০০ টাকার রাইডে আপনি শুধু আকাশে উড়তে পারবেন। ২৫০০ টাকার রাইডে আপনি আকাশেও উড়তে পারবেন আবার নামার সময় সমুদ্রের পানিতে হালকা পা স্পর্শও করতে পারবেন।

    ৫ থেকে ১০ মিনিট পর্যন্ত আপনি প্যারাসেইলিংয়ের মাধ্যমে পাখির মতো আকাশে উড়তে পারবেন। ৩০০-৫০০ ফুট পর্যন্ত উপরে ভেসে বেড়াবেন।

    ১২ বছরের নিচে, দুর্বলচিত্তের মানুষ কিংবা হার্টের রোগী ছাড়া সবাই নিশ্চিন্তে প্যারাসেইলিং করতে পারেন। তবে আপনার যদি উচ্চতা ভীতি থাকে তবে প্যারাসেইলিং না করাই ভালো।

    প্যারাসেইলিং করার আগে অবশ্যই উড্ডয়নকারীকে একটি বন্ডে সই করতে হয়। বন্ডে লেখা থাকে প্যারাসেইলিংয়ের সময় কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে তার দায় নেবে না সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। তাই কিছুটা ঝুঁকি নিয়েই আপনাকে এই উপভোগ করতে হবে।

    যদিও যান্ত্রিক ত্রুটি কিংবা দুর্ঘটনার জন্য সবসময় প্রস্তুত থাকে প্যারাসেইলিং রাইড সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। এজন্য একটি স্পিডবোট, একটি জেট স্কি রেডি তাকে আপদকালীন সময়ের জন্য।

    প্যারাসেইলিংয়ের সময় হাতে মোবাইল ফোন, চোখে চশমা না রাখাই ভালো। আকাশে ওড়ার রোমাঞ্চকর এই দৃশ্য ধারণ করতে চাইলে বডি মাউন্টেড অ্যাকশন ক্যামেরা ব্যবহার করতে পারেন। তবে সেলফি স্টিকের মাধ্যমে ফোনে ভিডিও ধারণ না করাই ভালো। হাত থেকে ফসকে সাগরে আপনার ফোনের সলিল সমাধি হতে পারে।

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সর্বশেষ

    রাজনীাত

    বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য বিদেশে হাসপাতাল খোজা হচ্ছে

    প্রভাতী সংবাদ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা মনে করেন আবেদনে সরকারের দিক থেকে ইতিবাচক...

    আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

    আরো পড়ুন

    Leave a reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    spot_imgspot_img