More

    বাল্যবিয়ের দায়ে সাময়িক বরখাস্ত শাহীন চেয়ারম্যানকে স্থায়ী বরখাস্তে আইনী নোটিশ

    ইসমাইল গাজী সৌরভ

    পটুয়াখালীর কনকদিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করতে সরকারকে আইনি নোটিশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী। সালিশ করতে গিয়ে কিশোরী মেয়েকে বিয়ে করার ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়ার পরে দেওয়া হল স্থায়ী বহিস্কারে এ নোটিশ।

    স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ তিনজনকে এ নোটিশ পাঠানো হয়। সোমবার ঐ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রফিক মীরের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মাদ ফারুক হোসেন এ নোটিশ পাঠান।

    নোটিশে ১৫ দিনের সময় দিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়েছে, অন্যথায় পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

    নোটিশে বলা হয়েছে, সম্প্রতি কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন হাওলাদার একটি সালিসে গিয়ে বাল্যবিয়ে করেন, যেটি আইনত অবৈধ। একজন চেয়ারম্যান হিসেবে শাহিন হাওলাদার রক্ষক থেকে ভক্ষকের ভূমিকা রেখেছেন। পাশাপাশি এই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনেক অনিয়ম দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ আছে। তাই চেয়ারম্যানকে সাময়িক নয়, স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করতে হবে।

    ঘটনার বিবরণে জানা যায়, সম্প্রতি পটুয়াখালীর কনকদিয়া ইউনিয়নের এক কিশোরীর সঙ্গে একই ইউনিয়নের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক প্রকাশ পায়। এরপর গত ২৪ জুন রাতে তারা দুজন পালিয়ে যায়। বিষয়টি কিশোরীর বাবা কনকদিয়ার ইউপি চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারকে জানান।

    এরপর চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে দেয়ার কথা বলে ২৫ জুন কনকদিয়া ইউপি কার্যালয়ে ছেলে ও মেয়ের পরিবারকে যাওয়ার নির্দেশ দেন। ওই দিন সকাল ৯টার দিকে দুই পরিবারের সদস্যরা ইউপি কার্যালয়ে যান। সেখানে মেয়েটিকে দেখে পছন্দ হয়ে যায় চেয়ারম্যানের। তিনি মেয়েটিকে বিয়ে করার আগ্রহ দেখান। ওই দিনই দুপর ১টায় স্থানীয় কাজীকে বাড়িতে ডেকে ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে ওই কিশোরীকে বিয়ে করেন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার।

    বিয়ের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরে সমালোচনার মুখে ২৬ জুন একই কাজীর মাধ্যমে কিশোরী মেয়েটিকে তালাক দেন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার।

    চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারের দাবি, ‘মেয়েটি তাকে স্বামী হিসেবে মেনে না নেয়ায় তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বর্তমানে মেয়েটি তার বাবার হেফাজতে আছে বলেও জানা গেছে।’

    এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৮ জুন চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

    অপ্রাপ্তবয়স্ক কিশোরীকে বিয়ে: শাহীন চেয়ারম্যান বরখাস্ত

    অপ্রাপ্তবয়স্ক কিশোরীকে বিয়ে করায় পটুয়াখালীর কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহীন হাওলাদারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এদিকে চেয়ারম্যান শাহীনের বিয়ে করার এই ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে বলেছে হাইকোর্ট।

    সোমবার রাতে স্থানীয় সরকার বিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

    এতে বলা হয়, পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ৬ নম্বর কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ শাহিন হাওলাদার সালিশ করতে গিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে এক অপ্রাপ্তবয়স্ক (১৪ বছর ২ মাস ১৪ দিন) কিশোরীকে বিয়ে করায় স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন ২০০৯ এর ৩৪ (৪) (ঘ) ধারার অপরাধ সংঘটিত করায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

    চিঠি পাওয়ার ১০ কার্যদিবসের মধ্যে কেন তাকে চূড়ান্তভাবে অপসারণ করা হবে না, তার জবাব জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার বিভাগে পাঠাতেও বলা হয়েছে।

    পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন বলেন, ‘আ‌মি আপনা‌দের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। তবে কোনো চি‌ঠি পাই নাই।’

    অভিযুক্ত চেয়ারম্যান শাহীন হাওলাদার বলেন, ‘আ‌মি কোনো চি‌ঠি পাই নাই। টি‌ভিতে দেখছি। তবে আ‌মি বু‌জি না যে, কেন আমাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বরখাস্ত হবার মতো কোন কাম ক‌রি নাই। আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।’

    কিশোরী বলেন, ‘রমজান আলীর কাছে কোরআন শরিফ পড়ত সে। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হয়। ওই মসজিদেই রমজানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। তবে বয়স কম হওয়ায় কাবিন হয়নি।’

    রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেয়।

    ৩০ দিনের মধ্যে পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক, জেলা নিবন্ধক ও পিবিআইকে তদন্ত করে আলাদা তিনটি প্রতিবেদন জমা দিতে হবে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলের কাছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য ৮ আগস্ট দিন ঠিক করে দিয়েছে আদালত।

    একই সাথে ঐ কিশোরীকে নিরাপত্তা দিতে পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে উচ্চ আদালত।

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সর্বশেষ

    রাজনীাত

    বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য বিদেশে হাসপাতাল খোজা হচ্ছে

    প্রভাতী সংবাদ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা মনে করেন আবেদনে সরকারের দিক থেকে ইতিবাচক...

    আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

    আরো পড়ুন

    Leave a reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    spot_imgspot_img