More

    সোনিয়া-মমতা আলোচনা: বিজেপি বিরোধী জোটের বার্তা

    সোনিয়া গান্ধীর বাসভবন ১০ জনপথে তার নির্ধারিত বৈঠক সম্পর্কে বলতে গিয়ে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, এই বৈঠক হবে ‘চায়ে পে চর্চা’ (চা চক্র)। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পূর্বে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)-কে মোকাবিলায় বিরোধীদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সোনিয়া গান্ধী আলোচনা করেছেন।

    কলকাতা ব্যুরো:

    ভারতের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকটি ছিল খুবই ইতিবাচক।’ তিনি।আশা করেন, ‘অদূর ভবিষ্যতে এর থেকে ইতিবাচক কিছু আসবে।’

    আজ (২৮ জুলাই) বুধবার নয়াদিল্লির ১০ জনপথে বৈঠকের পর একথা বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে এ তথ্য জানিয়েছে।

    বৈঠকে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও উপস্থিত ছিলেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে।

    বৈঠক শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘সোনিয়া গান্ধী তাকে তার বাসভবনে চা পানের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন’। এবং বৈঠকে তারা বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

    মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছি। আমরা ‘পেগাসাস স্পাইওয়্যার স্নুপিং’ বিতর্ক এবং কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়েও আলোচনা করেছি।’

    আগামী ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিরোধীদের প্রস্তুতির বিষয়টি এই বৈঠকে স্থান পেয়েছে কি-না জানতে চাইলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বিরোধী ঐক্যের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছি।’

    তিনি আরো বলেন, ‘এটি খুব ভালো এবং ইতিবাচক বৈঠক ছিল। অদূর ভবিষ্যতে এর থেকে একটি ইতিবাচক ফল আসবে।’

    চলতি বছরের গত মে মাসে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তার দল (টি.এম.সি) জেতার পরে প্রথমবারের মতো দিল্লি সফর করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৫ দিনের সফরে তিনি কয়েকজন বিরোধী দলের নেতার সঙ্গে দেখা করছেন। গত মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন তিনি।

    সোনিয়া গান্ধীর বাসভবন ১০ জনপথে তার নির্ধারিত বৈঠক সম্পর্কে বলতে গিয়ে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, এই বৈঠক হবে ‘চায়ে পে চর্চা’ (চা চক্র)। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের পূর্বে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)-কে মোকাবিলায় বিরোধীদের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সোনিয়া গান্ধী আলোচনা করেছেন।

    বিরোধী নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘এই নেতাদের অনেকেই আমার পুরনো বন্ধু। আমরা পুরনো এবং নতুন সময় নিয়ে আলোচনা করেছি। আমি পরশু (৩০ জুলাই) অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে দেখা করবো। জাভেদ আখতার আর শাবানা আজমি সময় চেয়েছিলেন, আমি তাদেরকেও সময় দিয়েছি।’

    তিনি আরো জানান, ‘আগামীকাল আমার দলের সংসদ সদস্যদের সঙ্গে দেখা করবো। আজ কংগ্রেস নেতা কমল নাথ, আনন্দ শর্মা এবং অভিষেক মনুর সঙ্গে দেখা করেছি।’

    আসন্ন ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের বিষয়টি স্মরণে রেখে বিরোধী দলের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছেন কি-না জানতে চাইলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘নির্বাচন অনেক দূরে। কিন্তু, পরিকল্পনা আগে থেকেই করতে হবে।’

    বিজেপি আসলে একটা রোগ, জনতার রায় মানতে জানে না’

    বিজেপি আসলে একটা রোগ, জনতার রায় মানতে জানে না- এই মন্তব্য করে বিজেপি’কে তুলোধনা করলেন মমতা ব্যানার্জি। পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের কর্মকান্ড প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী এ মন্ত্রব্য করেন।

    তিনি বলেন, ‘এরা নিজেদের হার মানতে জানে না। মানুষের চাহিদা বোঝে না। এরা আইন মানে না। এখন কেউ যদি ভাবে, সেলফিশ জায়ান্ট হবে তবে কিছু করার নেই।’

    আলাপন প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা আলাপনের মতো একজন অফিসার দেখান তো আমাকে। আলাপন একজন অত্যন্ত যোগ্য অফিসার, সৎ অফিসার। ও সারা জীবন অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করেছে। ওকে ওর ভাইয়ের মৃত্যুর কয়েক দিনের মধ্যে কেন্দ্র যেভাবে হেনস্তা করেছে তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। দেশের জন্য সারা জীবন কাজ করলো, আর দেশ এখন এই প্রতিদান দিচ্ছে ওকে।’

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সর্বশেষ

    রাজনীাত

    বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য বিদেশে হাসপাতাল খোজা হচ্ছে

    প্রভাতী সংবাদ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা মনে করেন আবেদনে সরকারের দিক থেকে ইতিবাচক...

    আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

    আরো পড়ুন

    Leave a reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    spot_imgspot_img