More

    দল ও মেয়র পদ থেকে বহিষ্কার হওয়ার শঙ্কায় আবদুল কাদের মির্জা

    নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

    দল ও মেয়র পদ থেকে বহিষ্কার হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। তিনি বলেন, ‘আজকে আমার জীবনে হয়তো জনপ্রতিনিধি বা পৌরসভার মেয়র হিসেবে শেষ কর্মদিবস।’

    রবিবার (১২ জুন) দুপুর ১২টায় ফেসবুক লাইভে এসে এ কথা বলেন তিনি।

    এ সময় আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ‘আজ সকাল ৯টায় মোবাইলে একটা কল পেয়েছি। নোয়াখালীর একজন ত্যাগী নেতা আমাকে ফোন দিয়ে বলেছেন, নেত্রী (শেখ হাসিনা) আমাকে নাকি বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছেন।

    তিনি (ওবায়দুল কাদের) গতকাল নাকি আমাকে বহিষ্কারের জন্য নেত্রীকে অনুরোধ করেছেন। এরপর নেত্রী নাকি ওই নির্দেশ দিয়েছেন। তবে আমি খবর নিয়ে জেনেছি, ওবায়দুল কাদের নেত্রীকে বলেছেন, তাকে (ওবায়দুল কাদের) সরিয়ে দিতে। তিনি বলেছেন, “আমি এভাবে দল ও সরকারের দায়িত্ব পালন করতে পারবো না।

    ছোট ভাই কাদের মির্জা আমাকে অপমান করেছে”। নেত্রী বলেছেন, “সেটা তোমার পারিবারিক বিষয়, তুমি দেখ।” এখন তিনি মিথ্যাচার করছেন, আমাকে নাকি বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছেন।’

    তিনি বলেন, ‘সকালে এ কথা জানার পর আমি পৌরসভার দাফতরিক সব দস্তখত দিয়ে শেষ করেছি। নেত্রীর নির্দেশ পেলে দল এবং পৌরসভার পদ থেকে বিদায় নেবো। নেত্রী ব্যস্ত মানুষ, তিনি হয়তো সময় পাবেন না, তবে সঙ্গে যারা থাকেন তাদের কেউ মেসেজ দিলেও হবে।’

    ভাই ওবায়দুল কাদের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ওবায়দুল কাদেরকে আমি কীসের অপমান করেছি? তার সঙ্গে দেখা করেছি, বললেন, “শান্ত থাক।” এর দুই দিন পর তার ভাগনের নেতৃত্বে আমার নয় জন ছেলেকে গুলি করা হলো।

    কোনও বিচার পাইনি। আমি কেন? কোম্পানীগঞ্জের একটা পাগলও বলবে, গত পাঁচ মাস এখানকার অস্থিতিশীল পরিস্থিতির জন্য ওবায়দুল কাদেরই দায়ী। এটা বলা অপরাধ হলে, আমাকে বহিষ্কার করে দিন।

    আমার নেতাকর্মীরা প্রতিনিয়ত হামলার শিকার হচ্ছেন। আমি লোকজনকে কত শান্ত করে রাখবো। আমার সঙ্গে যত ওয়াদা করেছেন, একটাও পালন করেননি ওবায়দুল কাদের।’

    ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘আপনার বউয়ের কিচ্ছা আবুল ফজল লিখলেও শেষ করতে পারবেন না। সেটা পরে আরেক দিন বলবো। বাংলাদেশে আপনি যাদের নমিনেশন দেন, তারা কে কী করে তাদের সেই চেহারাটা কি আপনি দেখেছেন? যাদের কোনও অতীত নেই, তাদেরই নমিনেশন দেন আপনি।’

    কোম্পানীগঞ্জে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদে নিজের ঘোষিত প্রার্থীদের তালিকা বাতিল ঘোষণা করে কাদের মির্জা বলেন, ‘এ ঘোষণা দেবেন একমাত্র শেখ হাসিনা। তিনি যাদের মনোনয়ন দেবেন, তারা যদি যোগ্য হন তাহলে তাদের পক্ষে কাজ করবো আমি।’

    এদিকে, বহিষ্কার হলে পৌরসভার পরবর্তী উপনির্বাচনে আবারও দাঁড়িয়ে নিজের জনপ্রিয়তা যাচাই করবেন বলেও জানান। যদিও এর আগে স্থানীয় সরকারের আর কোনও নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার অঙ্গীকার করেছিলেন তিনি।

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সর্বশেষ

    রাজনীাত

    বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য বিদেশে হাসপাতাল খোজা হচ্ছে

    প্রভাতী সংবাদ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা মনে করেন আবেদনে সরকারের দিক থেকে ইতিবাচক...

    আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

    আরো পড়ুন

    Leave a reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    spot_imgspot_img