More

    বিধিনিষেধ বাড়লেও ঈদুল আজহার কারনে শিথিলতা

    নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

    করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় ১৪ই জুলাইয়ের পরেও বিধিনিষেধ বাড়তে পারে। সেই হিসাবে আগামী ঈদুল আজহার সময়ও বিধিনিষেধ বহাল থা্কার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়লেও ইদুল আজহার কোরবানির পশু কেনাবেচার জন্য বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করার চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার।

    মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চলাচল, শপিংমল ও দোকান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত আসতে পারে। তবে এখনই সবকিছু চূড়ান্ত নয়, আগামী মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বিস্তারিত জানা যাবে।

    দেশের আকাশে আজ পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেছে। আগামী ২১ জুলাই দেশে উদযাপিত হবে মুসলিমদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা।

    ইসলামী ফাউন্ডেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা শায়লা শারমীন বলেন, ‘রবিবার সন্ধ্যায় দেশের আকাশে চাঁদ দেখা গেছে। রাজবাড়ী, নড়াইল ও ঝালকাঠি এই তিন জেলায় চাঁদ দেখা যায়।’

    এর ফলে সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে জিলহজ মাস গণনা। গণমাধ্যমকে পাঠানো ইসলামী ফাউন্ডেশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২১ জুলাই বুধবার বাংলাদেশে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

    ইদুল আজহাকে কেন্দ্র করেই বিধিনিষেধে শিথিলতা আসতে পারে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

    রোববার (১১ জুলাই) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘আমরা যদি সংক্রমণ কমাতে চাই তবে এ প্রক্রিয়াটি (বিধিনিষেধ) আমাদের অব্যাহত রাখতে হবে বিভিন্ন পর্যায়ে। আমাদের কোরবানির হাট আছে। এই দুটি বিষয় কীভাবে সমন্বয় করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারব, সেটা নিয়ে চিন্তা-ভাবনা হচ্ছে। আমরা হাটগুলোতে কতটা নিয়ন্ত্রিত উপায়ে করতে পারি সে বিষয় নিয়ে আলোচনা হচ্ছে।’

    তিনি বলেন, ‘ঈদের ছুটিতে কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশনা দেয়া হবে। ঈদের মধ্যে মানুষের চলাচলে অবশ্যই বিধিনিষেধ থাকবে। কারণ আমাদের গত ঈদের অভিজ্ঞতা ভালো নয়। ঈদের ছুটিতে মানুষ বাড়ি যাওয়ায় গ্রামে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। করোনার ভয়াল গ্রাস থেকে গ্রামও এখন আর নিরাপদ নয়।’

    করোনা নিয়ন্ত্রনে অনেকগুলো বিকল্প পদ্ধতি নিয়ে সরকার কাজ করছে বলে জানান ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য যেমন করেই হোক করোনা নিয়ন্ত্রণ করা।’

    ‘হাঁটে কেউ আসলে যাতে একা আসা যায়, হাটে যাতে বেশিসংখ্যক মানুষ না আসে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে। মানুষ যাতে দ্রুত হাট থেকে বেরিয়ে যেতে পারে, সেই ব্যবস্থাও থাকবে।’

    প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কাছে অনেক ধরনের পরামর্শই আছে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে আমরা মিটিং করবো। কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি কমিটির পরামর্শ নেব।’

    করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি দেখে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করা হবে জানিয়ে ফরহাদ হোসেন বলেন, মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বিধিনিষেধের বিষয়ে পরবর্তী প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

    প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ডিজিটাল মাধ্যমে এবার ৭৫ শতাংশ পশু বিক্রির চেষ্টা করা হবে। এই কারনে বিভিন্ন ওয়েবসাইট সক্রিয় করা হচ্ছে। এর সঙ্গে ফিজিক্যাল হাটেরও প্রয়োজন আছে। এর কারণ সমাজের সব ধরনের মানুষের ডিজিটাল অ্যাকসেস নেই। আমরা চাচ্ছি দরকষাকষিটা যেন কম হয়, সেই ব্যবস্থা করতে। মানুষ যাতে দ্রুত ঝটপট গরু কিনতে পারে।’

    করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপক হারে বেড়ে যাওয়ায় গত ১ জুলাই সকাল ৬টা থেকে সাত দিনের কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়। এই বিধিনিষেধ বলবত ছিল ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত। পরে ১৪ জুলাই পর্যন্ত বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও সাত দিন বাড়ানো হয়।

    কঠোর বিধিনিষেধ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জারি করা প্রজ্ঞাপনে ২১টি শর্ত দেয়া হয়। শর্ত অনুযায়ী, এ সময়ে জরুরি সেবা দেয়া প্রতিষ্ঠান-ব্যক্তি ছাড়া সরকারি-বেসররকারি অফিস, যন্ত্রচালিত যানবাহন, শপিংমল ও দোকানপাট বন্ধ থাকবে। তবে খোলা থাকবে শিল্প-কারখানা। এ সময়ে জনসমাগম হয় এমন কোনো সামাজিক বা রাজনৈতিক বা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবে না ।

    এর আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু এবং শনাক্তে রেকর্ড দেখলো বাংলাদেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ২৩০ জন।

    একই সময়ে ১১ হাজার ৮৭৪ জনের শরীরে নতুন করে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে।

    হিসাব অনুযায়ী বাংলাদেশে এর আগে একদিনে করোনায় এত মৃত্যু ও শনাক্ত হয়নি।

    দেশে এখন করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৪১৯ জনে। আর বর্তমানে মোট শনাক্তের সংখ্যা ১০ লাখ ২১ হাজার ১৮৯ জন।

    রোববার (১১ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

    © এই নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
    / month
    placeholder text

    সর্বশেষ

    রাজনীাত

    বিএনপি চেয়ারপারসনের জন্য বিদেশে হাসপাতাল খোজা হচ্ছে

    প্রভাতী সংবাদ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসার জন্যে আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা মনে করেন আবেদনে সরকারের দিক থেকে ইতিবাচক...

    আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ

    আরো পড়ুন

    Leave a reply

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    spot_imgspot_img